Headlines
Loading...
60000   শূন্যপদে পশ্চিমবঙ্গের জেলায় জেলায় বিপুল নিয়োগ | WB Govt Job Recruitment 2022 শূন্যপদে পশ্চিমবঙ্গের জেলায় জেলায় বিপুল নিয়োগ | WB Govt Job Recruitment 2022

60000 শূন্যপদে পশ্চিমবঙ্গের জেলায় জেলায় বিপুল নিয়োগ | WB Govt Job Recruitment 2022 শূন্যপদে পশ্চিমবঙ্গের জেলায় জেলায় বিপুল নিয়োগ | WB Govt Job Recruitment 2022

 পশ্চিমবঙ্গের চাকরি প্রার্থীদের জন্য নতুন করে একসঙ্গে বিপুল সংখ্যক কর্মী নিয়োগের বিশাল বড় সুখবর। যারা দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে চাকরির খোঁজ করে যাচ্ছেন কিন্তু কোন চাকরি পাচ্ছেন না তাদের জন্যই মূলত এই বিশেষ সুখবরটি। এছাড়াও যারা নতুন চাকরির জন্য প্রস্তুতি শুরু করেছেন বা পড়াশোনা শেষ করে চাকরির খোঁজ করছেন এমনকি যারা এখনো পড়াশোনা করছেন তারাও এই চাকরির সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন। পশ্চিমবঙ্গের যে সমস্ত চাকরিপ্রার্থী শিক্ষিত অথচ বেকার দীর্ঘদিন ধরে চাকরির খোঁজ করছেন এমন পরিস্থিতিতে রাজ্য সরকারের তরফে সরাসরি প্রশিক্ষণ দিয়ে ৬০,০০০ কর্মী নিয়োগ করা হবে এমনই এক তথ্য সামনে এলো। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘোষণা অনুযায়ী রাজ্যে আগামী কিছুদিনের মধ্যেই এবার একজন দুজন নয় পুরোপুরি ৬০ হাজার যুবক-যুবতীদের পশ্চিমবঙ্গে নিয়োগ করা হবে। এই প্রথম পশ্চিমবঙ্গে এত বড় সংখ্যক কর্মী নিয়োগ করা হবে একসঙ্গে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন রাজ্যে প্রায় লক্ষাধিক কর্মী প্রয়োজন এবং একে একে সমস্ত কর্মী নিয়োগ করা হবে তারই মধ্যে এই একটি নতুন নিয়োগ। জানানো হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের শিল্প ক্ষেত্রে প্রচুর পরিমাণে কর্মীর প্রয়োজন কারণ রাজ্য সরকার নতুন করে শিল্পকে একমাত্র হাতিয়ার করে অর্থনৈতিক দিক দিয়ে উন্নতি হতে যাচ্ছে তাই রাজ্যে প্রচুর পরিমাণে কর্মীর টান পড়েছে এবং যেখানে সমগ্র পশ্চিমবঙ্গ থেকে কর্মীদের প্রশিক্ষণ দিয়ে সরাসরি এখানে নিয়োগ করা হবে। ধাপে ধাপে এই নিয়োগ করা হবে এবং আগামী তিন বছরের মধ্যে লক্ষাধিক কর্মী নিয়োগ করা হবে পশ্চিমবঙ্গে।

কিছুদিন আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন এবার রাজ্যে শিল্পোন্নতি ঘটবে এবং শিল্পকেই একমাত্র অর্থনৈতিক উন্নতির হাতিয়ার হিসেবে দেখতে চান রাজ্য সরকার এবং এরই পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্যে বিপুল সংখ্যক শিল্পের আহ্বান করা হয়েছে এবং সঙ্গে লক্ষাধিক কর্মী নিয়োগের কথা ঘোষণা করেছিলেন তিনি। বিশেষ করে রাজ্যের বেকার যুবক যুবতীদের কর্মের সন্ধান করে দিতে এবং রাজ্য শিল্প উন্নত ঘটাতে নতুন করে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে। জানানো হয়েছে চাকরিপ্রার্থীদের প্রথমে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে এবং প্রশিক্ষণ শেষে সরাসরি চাকরিতে নিযুক্ত করা হবে। শিক্ষিত ও বেকার যুব সমাজকে কর্মমুখী করে তুলতে এবং বেকারত্ব দূর করার উদ্দেশ্যেই মূলত এই কর্মসূচি রাজ্যের। আরো জানানো হয়েছে রাজ্যে ছোট বড় বিপুল পরিমাণে শিল্প তৈরি করা হয়েছে এইসব শিল্পে চাকরিপ্রার্থীদের প্রথমে প্রশিক্ষণ দিয়ে তাদের দক্ষ করে তোলা হবে এবং পরবর্তীকালে ওই দক্ষ কর্মীদের সরাসরি কাজের নিযুক্ত করা হবে। এর ফলস্বরূপ রাজ্যে যেমন দক্ষ শ্রমিকের উদ্ভব ঘটবে তেমনি শিল্প উন্নতিও হবে। শুধুমাত্র শিল্প ক্ষেত্র নয় রাজ্যে আরো বিভিন্ন দপ্তরে একে একে প্রচুর পরিমাণে কর্মী নিয়োগ করা হবে।

রাজ্য সরকারের কর্মী নিয়োগের চুক্তি

এখানে কর্মী নিয়োগের জন্য রাজ্যের শ্রমদপ্তরের সঙ্গে ইন্ডিয়ান ইন্ডাস্ট্রিজের মধ্যে চুক্তিপত্র স্বাক্ষরিত হয়েছে। এই কর্মী নিয়োগ বিষয়ে ইতিমধ্যে রাজ্য সরকার একটি চুক্তিপত্র স্বাক্ষর করেছেন কনফেডারেশন অব ইন্ডিয়া ইন্ডাস্ট্রিজ (CII) ও রাজ্য শ্রমদপ্তরের তরফে। ইতিমধ্যেই জানানো হয়েছে কম বেশি প্রায় তিন লক্ষ ছোট বড় সংস্থা তৈরি হয়েছে এবং যার স্থায়ী সদস্য হল সিআইআই এর। এইসব সমস্যায় প্রতি বছরের প্রায় লক্ষাধিক কর্মীর প্রয়োজন পড়ে এবং এই কর্মী নিয়োগের চাহিদা মেটাতেই এত বড় ঘোষণা করা হয়েছে। এর এইসব কাজে লোক নিয়োগ করা হয় সিআইআই এর মাধ্যমে।

প্রশিক্ষণ:

এবার রাজ্য সরকার রাজ্যের বেকার যুবক-যুবতীদের কর্মমুখী করে তুলে তাদের চাকরি দিতে উদ্যোগী করে তুলতে চাচ্ছেন । ইতিমধ্যেই এই সংস্থা রাজ্য সরকারের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে রাজ্যের সমস্ত বেকার যুবক-যুবতীদের কর্মমুখী করে তুলতে এবং তাদের প্রশিক্ষণ দিয়ে কাজের উপযোগী করে তাদের সরাসরি চাকরিতে নিযুক্ত করার শর্তে বদ্ধপরিকর। চার মাস আগে নবান্নে এ বিষয়ে একটি প্রস্তাব পাঠানো হয়েছিল এবং এই প্রস্তাব সাক্ষরিত হয় এবং জানা যায় রাজ্যে প্রশিক্ষণের জন্য 15 টি এমপ্লয়মেন্ট এক্সচেঞ্জ অফিস দেওয়া হবে, যেখান থেকে চাকরি প্রার্থীরা সরাসরি প্রশিক্ষণ নিতে পারবেন। প্রশিক্ষণ শেষে চাকরিপ্রার্থীদের সরাসরি কাজের নিযুক্ত করানো হবে।

ধাপে ধাপে প্রশিক্ষণ

ঘোষণা করা হয়েছে সর্বমোট ৬০ হাজার চাকরিপ্রার্থীদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে চাকরি দেওয়া হবে এবং এই নিয়োগ হবে ধাপে ধাপে। প্রথম অবস্থায় ১৫ হাজার চাকরিপ্রার্থীকে প্রশিক্ষণ দিয়ে কাজের নিযুক্ত করা হবে। পরবর্তীতে ১৫ হাজার চাকরিপ্রার্থীদের প্রশিক্ষণ দিয়ে কাজে নিযুক্ত করা হবে এবং এরপর আরো ২৫ হাজার চাকরিপ্রার্থীদের প্রশিক্ষণ দিয়ে একে একে কাজে নিযুক্ত করা হবে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন রাজ্য থেকে আর রাজ্যের বাইরে চাকরি প্রার্থীদের কাজ করার জন্য যেতে হবে না রাজ্যের মধ্যে বিপুল পরিমাণে কর্ম সন্ধান তৈরি করা হবে এবং চাকরিপ্রার্থীরা বাইরে থেকে পড়াশোনা করে এসে রাজ্যে ভালো বেতনের মোটা মাইনের চাকরি করতে পারবেন। যার ফলে রাজ্য ও অর্থনৈতিক দিক থেকে উন্নত হবে।

এই নিয়োগ পশ্চিমবঙ্গের তথা সমগ্র রাজ্যের বেকার যুবক-যুবতীদের মনে আসার সঞ্চার জোগাবে এবং খুব শীঘ্রই এই নিয়োগের আবেদন প্রক্রিয়াও শুরু হয়ে যাবে। ইতিমধ্যেই একটি চাকরি সংক্রান্ত পোর্টালে এই খবরটি প্রকাশিত হয়েছে এর নিয়োগ প্রক্রিয়া পরবর্তীকালে বিস্তারিতভাবে আপনাদের সামনে তুলে ধরা হবে।

0 Comments: